করোনা ভাইরাস : ফেনীতে ২৬ প্রবাসীসহ ১৩৭ জন হোম কোয়ারেন্টাইনে

ফেনীতে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে বিদেশ থেকে আসা ২৬ জনসহ তাদের পারিবার মিলিয়ে ১৩৭ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে ফেনীর সিভিল সার্জন কার্যালয়ের মেডিক্যাল অফিসার তাহসিন নুর অমি এ তথ্য জানিয়েছেন। কোয়ারেন্টাইনে থাকা সবাইকে নিবিড় পর্যবেক্ষণে রেখেছে জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন ও জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ।

তাহসিন নুর জানান, কোয়ারেন্টাইনে থাকা লোকজনদের পর্যবেক্ষণ করছেন স্বাস্থ্য বিভাগের স্বাস্থ্যকর্মী। এর বাইরে জেলা প্রশাসন ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে দেখাশোনা করার জন্য। সিভিল পোশাকে পুলিশও কোয়ারেন্টাইনে থাকা লোকজনকে পর্যবেক্ষণ করছেন। পারিবারিক কোয়ারেন্টাইনে থাকা প্রত্যেককে ১৪ দিন কোয়ারেন্টাইনে থাকার পরামর্শ দিয়েছে।

সিভিল সার্জন সাজ্জাদ হোসেন জানান, ফেনী ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ৩০ বেড, ফেনী ট্রমা সেন্টারে ৩০ বেড, সোনাগাজীর মঙ্গলকান্দি ২০ শয্যা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ২০ বেডসহ পাঁচটি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঁচ বেড করে ২৫ বেডের আইসোলেশন কর্নার করা হয়েছে। কেউ করোনা ভাইরামে আক্রান্ত হলে তাদের চিকিৎসা দেওয়া হবে।

এদিকে করোনা ভাইরাস সংক্রমণের আতঙ্কে পরশুরামের বিলোনীয়া স্থলবন্দরে বাংলাদেশি যাত্রীদের ভারতে যাতায়াতসহ আমদানি-রপ্তানি বন্ধ করে দিয়েছে ভারতীয় কর্তৃপক্ষ। পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত এ নির্দেশনা কার্যকর থাকবে। অপরদিকে বন্ধ রয়েছে ছাগল নাইয়ার সীমান্ত হাট।