ফেনী

বিয়ের দেড় মাসের মাথায় ফেনী সিটি কলেজ ছাত্রীর আত্মহত্যা, স্বামী গ্রেফতার

ফেনীতে বিয়ের দেড় মাসের মাথায় লাশ হলেন কলেজছাত্রী, আত্মহত্যার পরোচনার মামলায় স্বামী গ্রেপ্তার।

ফেনীতে সানজিদা আক্তার নামে এক কলেজছাত্রীর বিয়ের দেড় মাসের মাথায় মৃত্যু হয়েছে। মেয়ের পরিবারের দায়ের করা মামলায় আত্মহত্যার পরোচনার অভিযোগে দুবাই প্রবাসী স্বামী আবুল বাশারকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। পুলিশ আবুল বাশারকে ফেনী সদর উপজেলার বালিগাঁও ইউনিয়নের আকরামপুর এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করে।

নিহতের পরিবার ও পুলিশ জানায়, গত ৭ নভেম্বর সানজিদার সঙ্গে দুবাই প্রবাসী আবদুল বাশারের পারিবারিক ভাবে বিয়ে হয়। বিয়ের কিছুদিন পর থেকে তার শ্বশুরবাড়ির লোকজন যৌতুকের দাবিতে তার ওপর মানসিকভাবে নির্যাতন চালায়। একপর্যায়ে গত ২৭ ডিসেম্বর সোমবাংর রাতে পুলিশ সানজিদার ঝুলন্ত মরদেহ আকরামপুর এলাকার শ্বশুরবাড়ি থেকে উদ্ধার করে। পর দিন মঙ্গলবার বিকেলে ফেনী জেনারেল হাসপাতালে ময়নাতদন্ত শেষে সানজিদার মরদেহ দাফন করা হয় কাশিমপুর এলাকায় পারিবারিক কবরস্থানে। নিহত সানজিদা আক্তার ফেনী সদর উপজেলার দক্ষিণ কাশিমপুর এলাকার বাসিন্দা ও ফেনী সিটি কলেজের দাদ্বশ শ্রেনীর শিক্ষার্থী ছিলো।

নিহত সানজিদার মা মোহছেনা আক্তার জানান, যৌতুক লোভী স্বামী ও তার পরিবার সানজিদার ওপর বিভিন্ন ভাবে নির্যাতন চালায়। তাদের পোরচনার শিকার হয়ে আত্নহত্যা করেছেন আমার মেয়ে। বিয়ের পর দিন থেকেই তার ওপর নির্যাতন শুরু হয়েছে।

মেয়ের শ্বামী বিভিন্নভাবে তাকে স্বাভাবিক ও মানসিকভাবে নির্যাতন করে। নির্যাতন সইতে না পেরে মেয়ে আমার আত্মহত্যা করেছেন। আমরা আদালতের কাছে এ হত্যাকাণ্ডের বিচার চাই। এটা নিশ্চিত হত্যাকাণ্ড।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও ফেনী মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) নারায়ণ চন্দ্র দাস জানান, সানজিদার মা মোহছেনা আক্তার এ ঘটনায় বাদি হয়ে সানজিদার স্বামী আবুল বাশার, শ্বশুর ওলি আহমেদ, শ্বাশুড়ি সাফিয়া খাতুন,ভাসুর জাফর, তার স্ত্রী রুবি বেগম, ননদ পিংকি বেগমকে আসামি করে থানায় আত্মহত্যার পরোচনার মামলা দায়ের করেছে।

ফেনী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. নিজাম উদ্দিন জানান, গৃহবধূর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধারের ঘটনায় আত্মহত্যার পরোচনার মামলায় গ্রেপ্তার আবুল বাশারকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। গ্রেপ্তার আবুল বাশার ফেনী সদর উপজেলার বালিগাঁও ইউনিয়নের আকরামপুর এলাকার ওলি আহমেদের ছেলে।

আরও সংবাদঃ বিয়ের দেড় মাসের মাথায় ফেনী সিটি কলেজ ছাত্রীর আত্মহত্যা, স্বামী গ্রেফতার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *