পরশুরাম

পরশুরামে বাড়তি দামে সার বিক্রির অভিযোগে দোকানে তালা ঝুলিয়ে দিলেন মেয়র

পরশুরামে বাড়তি দামে সার বিক্রির অভিযোগে দোকানে তালা ঝুলিয়ে দিলেন মেয়র।

ফেনীর পরশুরাম উপজেলায় নির্ধারিত মূল্যের চেয়ে অতিরিক্ত দামে সার বিক্রি করায় কৃষকদের অভিযোগের প্রেক্ষিতে পরশুরাম বাজারের সার ডিলারদের দোকান বন্ধ করে দিয়েছেন পৌর মেয়র নিজাম উদ্দিন আহমেদ চৌধুরী সাজেল।

বৃহস্পতিবার (২ সেপ্টম্বর) সকালে দোকান বন্ধ করে দেয়া হয়।

কৃষকদের অভিযোগের ভিত্তিতে জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরে পরশুরাম উপজেলার অনুমোদিত ডিলার সরকারের নির্ধারিত মূল্যের তোয়াক্কা না করে প্রতি কেজিতে ৫ থেকে ১০ টাকা প্রতি বস্তায় ৩০০ থেকে ৪০০ টাকা বেশি দামে বিক্রি করে যাচ্ছে।

পরশুরাম উপজেলার তিনটি ইউনিয়ন ও পৌর এলাকার অসংখ্য কৃষক চলতি মৌসুমে একাধিকবার পরশুরাম উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও উপজেলা কৃষি কর্মকর্তাকে অভিযোগ করেও কোন সুফল না পাওয়ায় ক্ষতিগ্রস্ত ও ক্ষুব্ধ কৃষকরা বৃহস্পতিবার পৌর মেয়রের কাছে অভিযোগ দেন।

পরশুরাম উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে উপজেলায় সাতটি অনুমোদিত ডিলার রয়েছে হাবিব হাবিব ট্রেডার্স, পরশুরাম বানিজ্য বিতান, আলী আশরাফ, ইউনুস এন্ড ব্রাদার্স, দাউদ এন্ড ব্রাদার্স, মেসার্স আব্দুল খালেক, মেসার্স জামাল উদ্দিন। কৃষকরা অভিযোগ করেন সার ডিলাররা সকলে একই সিন্ডিকেটের, তাই সিন্ডিকেট করে বাড়তি দামে সার কিনতে বাধ্য করেন।

পরশুরাম উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা খুরশিদ হাসান জানান বাড়তি দামে সার বিক্রির অভিযোগ তিনি শুনেছেন। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে সার দোকান বন্ধ করার বিষয়টিও তিনি শুনেছেন বলে জানান।

পরশুরাম পৌরসভার মেয়র ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন আহমেদ চৌধুরী সাজেল জানান সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করার জন্য পরশুরাম বাজারের সার ব্যবসায়ীরা সিন্ডিকেট করে সারের কৃত্রিম সংকট দেখিয়ে কৃষকদেরকে বাড়তি দামে সার কিনতে বাধ্য করছে।

সরকারের নির্ধারিত দামে বিক্রির প্রতিশ্রুতি না দেয়া পর্যন্ত দোকান বন্ধ থাকবে বলে তিনি জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published.