লডকাউনে আসা-যাওয়া, উখিয়ায় ২ এনজিও কর্মীকে লাখ টাকা জরিমানা

কক্সবাজারের উখিয়ায় কোয়ারেন্টাইন না মানায় ২ এনজিও কর্মীকে লাখ টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। দুজনই রোহিঙ্গা ক্যাম্পে কর্মরত এনজিও ফ্রেন্ডশিপের কর্মকর্তা।

মঙ্গলবার (২৮ এপ্রিল) বিকেলে তাদের এ জরিমানা করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. নিকারুজ্জামান চৌধুরী। এ সময় ফ্রেন্ডশিপের কোটবাজার অফিসও লকডাউন করে দেন ইউএনও।

জানা গেছে, লকডাউন আমান্য করে দীর্ঘদিন ধরে গোপনে কক্সবাজার ও উখিয়া আসা-যাওয়া করছিল এনজিও কর্মীরা। আসা-যাওয়ার কেউ ব্যবহার করতো এনজিওর নিজস্ব গাড়ি আবার কেউ ভাড়ায়চালিত গাড়ি। গত ২৭ এপ্রিল বিকালে কোটবাজার ফেন্ডশিপ এনজিও অফিসের এক কর্মকর্তার নেতৃত্বে নিজস্ব গাড়ি করে আসেন ওই এনজিওর কর্মীরা। কিন্তু তারা ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইন না মেনে কর্মস্থলে যোগদেন।

উখিয়া উপজেলা নিকারুজ্জামান চৌধুরী বলেন, আমরা অনেক চেষ্টা করেছি, তাদের অনেক বুঝিয়েছি। কিন্ত আর ছাড় দেওয়া হবে না। ফ্রেন্ডশিপ কোটবাজার অফিসে তারা দুইজনই সিনিয়র অফিসার। তারা প্রথমে অস্বীকার করে। পরে বারবার জিজ্ঞাসাবাদ করার পর তারা স্বীকার করে। এরপর এই দুই কর্মকর্তাকে ১ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।